একটি নিশ্চয়যানে ভিনরাজ‍্য থেকে চাঁচল মহকুমায় ফিরছে দুই শ্রমিকের দেহ - NATUN GATI

Tuesday, June 2, 2020

Contact Us

একটি নিশ্চয়যানে ভিনরাজ‍্য থেকে চাঁচল মহকুমায় ফিরছে দুই শ্রমিকের দেহ

উজির আলী,নতুনগতি,চাঁচল:২৩ মে

আগমন ঈদে হরিয়ানার গুঁরগাও থেকে বাস বোঝাই শ্রমিক ফিরছিল চাঁচল মহকুমা এলাকায়। তারই মাঝে
উত্তরপ্রদেশে বাস দূর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে চাঁচল মহকুমার দুই পরিযায়ী শ্রমিক সহ চালকের।
আহত হয়েছে বেশ কয়েকজনও। মৃত দুই পরিযায়ী শ্রমিকের নাম মহবুল আলি(২৮) ও জাহির আলি(৩০)। মৃত বাস চালকের নাম জানা যায়নি।

মৃত মহবুল আলির মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর-২ নং ব্লকের দৌলতপুর জিপির বেজপুরা গ্রাম এবং মৃত জাহির আলি চাঁচল-১ ব্লকের মতিহারপুর জিপির ডোমাপীর এলাকার বাসিন্দা।
শুক্রবার বিকেল চারটা নাগাদ উত্তরপ্রদেশের ফাইজাদাবাদ এলাকার এপি জাতীয় সড়কে ঘটনায় ব‍্যাপক আতঙ্ক ছড়ায় বাসে আসা শ্রমিকদের। দূর্ঘটনা স্থলে বাস চালক মারা যায় বলে খবর। স্থানীয় লোকজন ও অন্যান্য পরিযায়ী শ্রমিকরা রক্তাক্ত অবস্থায় দুই পরিযায়ী শ্রমিকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব‍্যরত চিকিৎসকরা মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন বলে এমনটাই জানা গেছে ফেরত শ্রমিকদের মুখে। ঈদের আবহে তাদের অকাল মৃত্যুতে চাঁচল মহকুমা‌ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
সঙ্গে আসা পরিযায়ী শ্রমিক মহম্মদ সাকিল ও ইরফান আলিরা জানান চাঁচল মহকুমার প্রায় ৩১ জন পরিযায়ী শ্রমিক একটি বাসে করে দিল্লি থেকে উত্তরপ্রদেশের ফাইজাদাবাদ হয়ে মালদার চাঁচল মহকুমায় আসার পথে ফাইজাদাবাদ এলাকায় এপি জাতীয় সড়কে বাসের টায়ার পাংচার হয়ে যায় বলে জানান। তারই মাঝে পাংচার সারাতে গিয়ে কোনো ক্রমে ঘটনাটি ঘটেছে।

শ্রমিকদের মৃত‍্যুর খবর বাড়িতে পৌঁছাতেই ক্রন্দিত হয়ে ওঠে গোটো চাঁচল মহকুমা। শ্রমিকদের সমবেদনা জ্ঞাপন করেন অনেক সোশ‍্যাল মিডিয়াতেও।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে,মাস তিনেক আগে হরিয়ানার গুরগাঁয়ে সেলাইয়ের কাজ করতে গিয়েছিলেন ডোমাপীরের জাহের আলী। লকডাউন ঘোষনার পরে বাড়ি ফেরার খুব ইচ্ছে জাগে। বাড়িতে রয়েছে সাতমাসের গর্ভবতী স্ত্রী রুমা বিবি, আছে ৫ বছরের শিশু কন‍্যা জিমি খাতুনও। পরিবারের সাথে ঈদ কাটাবে তাই অন‍্যান‍্য শ্রমিকদের সাথে বাস ভাড়া করেই ফিরছিল। তার মধ‍্যেই শুক্রবার বাস দুর্ঘটনায় প্রানহানি। ডোমাপীরের বাসিন্দা তফজ্জল হোসেন জানান, তার সংসারে উপার্জন করার আর কেউ রইল না। গর্ভবতী স্ত্রী ও পাঁচ বছরের কন‍্যা সন্তান কে নি দিশেহারা তারা। সরকারি সাহায্য পেলে কিছুটা স্বস্তি পাবে পরিবারটি।
খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় মৃত জাহিরের পরিবারকে সমবেদনা জ্ঞাপন করতে হাজির হন মতিহার পুর জিপির প্রধান পপি দাস। তিনি জানান,বিধবা ভাতা শীঘ্রই চালু হবে। পরিবারে যেন আর্থিক স্বচছলতা বজায় থাকে তা অন‍্যান‍্য সাহায্যেের সাহায্যের জন‍্য আমরা বিডিওর কাছে আবেদন করব বলে জানিয়েছেন প্রধান পপি দাস।

সূত্রের খবর, উত্তরপ্রদেশ থেকে দেহ দুটির ময়নাতদন্তের পর একই নিশয়যানে রবিবার সকালে চাঁচল মহকুমার ওই দুইগ্রামে পৌঁছাবে দেহ।

Facebook Comments
error: Content is protected !!